যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় প্রতি মিনিটে মারা যাচ্ছেন একজন

0
27

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
বিশ্বের মধ্যে করোনাভাইরাস মহামারিতে সর্বাধিক ভুক্তভোগী দেশের তালিকায় এখনও শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ইতোমধ্যেই সেখানে করোনায় মোট প্রাণহানির সংখ্যা দেড় লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এছাড়া, দেশটিতে প্রতি মিনিটে অন্তত একজন করোনাভাইরাস সংক্রান্ত জটিলতায় মারা যাচ্ছেন বলে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

বুধবার যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৪৬১ জন, যা গত ২৭ মে’র পর থেকে সর্বোচ্চ। ওইদিন দেশটিতে মৃতের তালিকায় নাম উঠেছিল ১ হাজার ৪৮৪ জনের।

গত দুই মাসের মধ্যে সাম্প্রতিক দিনগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু বাড়ছে সর্বোচ্চ হারে। গত ১১ দিন ধরে দৈনিক এক হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন সেখানে।

দেশটিতে গত তিন সপ্তাহ ধরে মৃত্যুর হার বাড়লেও জুনের পর থেকে প্রথমবারের মতো সাপ্তাহিক করোনায় আক্রান্তের হার কমতে দেখা গেছে।

চলতি মাসে অ্যারিজোনা, ক্যালিফোর্নিয়া, ফ্লোরিডা ও টেক্সাসের হাসপাতালগুলোতে কোভিড-১৯ রোগীদের উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে মার্চ-এপ্রিলে জারি করা লকডাউন পুরোপুরি তুলে অর্থনৈতিক কার্যক্রম ফের চালুর সিদ্ধান্ত স্থগিত করতে বাধ্য হয়েছে মার্কিন প্রশাসন।

চলতি মাসে করোনায় মৃতের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্যগুলোর মধ্যে সবার চেয়ে এগিয়ে টেক্সাস। সেখানে অন্তত ৪ হাজার ৩০০ মানুষ এ অসুখে মারা গেছেন। এরপর ফ্লোরিডায় ২ হাজার ৯০০ এবং সর্বাধিক জনবহুল অঙ্গরাজ্য ক্যালিফোর্নিয়ায় ২ হাজার ৭০০ মানুষ মারা গেছেন।

এ তিনটি অঙ্গরাজ্য করোনায় মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধির হারে এগিয়ে থাকলেও মোট মৃত্যুতে এখনও শীর্ষে নিউইয়র্ক। এছাড়া, প্রতি লাখে মৃত্যুর হারে এগিয়ে রয়েছে নিউজার্সি।

সর্বাধিক করোনা সংক্রমিত ২০টি দেশের মধ্যে প্রতি লাখে মৃত্যুর হারে ছয় নম্বরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে প্রতি এক লাখ মানুষের মধ্যে করোনায় মারা গেছেন অন্তত ৪৫ জন। এই তালিকায় তাদের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে যুক্তরাজ্য, স্পেন, ইতালি, পেরু ও চিলি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here