ফিটনেস টেস্টে পাস মাশরাফি, রাতে লটারি

0
63

 

স্পোর্টস ডেস্ক

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে তিনটি দল মাশরাফি বিন মুর্তজাকে দলে নিতে আগ্রহ দেখিয়েছে। তবে মাঠে নামার পূর্বে শর্ত ছিল, মাশরাফিকে পাস করতে হবে ফিটনেস টেস্ট।

রোববার সেই বাঁধাও পেরিয়ে যান মাশরাফি। সকালে বিপ টেস্ট দিয়েছেন জাতীয় দলের সবচেয়ে সফলতম অধিনায়ক। বিপ টেস্টে তার ফল এসেছে ১০.৭। জানা গেছে, ফিটনেস পরীক্ষায় বেশ সাবলীল ছিলেন মাশরাফি। রানিংয়ে তেমন জড়তাও ছিল না। এছাড়া তার কোভিড পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করা হয় আজ। নেগেটিভ আসলে সোমবারই জৈব সুরক্ষা বলয়ে ঢুকবেন মাশরাফি।

বিসিবির ট্রেনার তুষার কান্তি হাওলাদার বলেন, ‘মাশরাফি আজকে সকালে ফিটনেস টেস্ট দিয়েছে। উনি পাশ করেছেন। ওনার টুর্নামেন্টে খেলতে আর কোন বাঁধা নেই।’

টুর্নামেন্টের বিধি অনুযায়ী একের অধিক দল যদি কোনো খেলোয়াড়কে চায় তাহলে লটারিতে হবে সমাধান। সেজন্য মাশরাফিকে লটারিতেই বসতে হবে। রাতে মাশরাফির লটারি অনুষ্ঠিত হবে টিম হোটেলে। এদিকে শেষ মুহূর্তে মাশরাফিকে পেতে আগ্রহ দেখিয়েছে বেক্সিমকো ঢাকাও। ফলে লটারি হচ্ছে চার দলের।

দীর্ঘ বিরতির পর গত পহেলা ডিসেম্বর মাশরাফি ফেরেন অনুশীলনে। প্রায় ৯ মাস পর সেদিন মিরপুরে ফিরে ফিটনেস ট্রেনিংয়ের পাশাপাশি ৪ ওভার বোলিং করেন। মাঠে ফেরার তাড়নায় মাশরাফি হয়েছেন ঝরঝরে। শরীরের ওজন কমিয়েছেন ১০ কেজি।

মাশরাফির পারিশ্রমিক ঠিক করেননি নির্বাচকরা। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানালেন, ‘টুর্নামেন্টের টেকনিক্যাল কমিটি মাশরাফিকে দলভুক্ত করার সবুজ সংকেত দেওয়ার পর পারিশ্রমিক নির্ধারণ করা হবে।’

প্রসঙ্গত, টুর্নামেন্টে চারটি গ্রেডে পারিশ্রমিক নির্ধারণ করা হয়েছে। ‘এ’ গ্রেডে পারিশ্রমিক ১৫ লাখ টাকা, ‘বি’ গ্রেডে ১০ লাখ এবং ‘সি’ ও ‘ডি’ গ্রেডে পারিশ্রমিক যথাক্রমে ৬ লাখ ও ৪ লাখ টাকা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here