চার চিকিৎসক, পুলিশ, কারারক্ষীসহ খুলনায় ২৯ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত

0
480

নিজস্ব প্রতিবেদক
খুলনা মেডিকেল কলেজের (খুমেক) আরটি-পিসিআর ল্যাবে চারজন চিকিৎসক, একজন পুলিশ সদস্য, একজন কারারক্ষীসহ ২৯ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। যার মধ্যে খুলনা জেলার ২৮ জন ও বাগেরহাট জেলার একজন রয়েছেন। আজ শনিবার রাতে তাদের নমুনা পরীক্ষার পর এ তথ্য পাওয়া গেছে। এটি খুলনায় একদিনে শনাক্ত হওয়া দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। এর আগে গত বৃহস্পতিবার একদিনে সর্বোচ্চ ৩৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়, যার মধ্যে ৩০ জনই খুলনার ছিলেন।

খুলনা মেডিকেল কলেজের (খুমেক) উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ জানান, শনিবার খুমেকের পিসিআর মেশিনে মোট ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। যার মধ্যে খুলনা জেলার নমুনা ছিলো ১৬৭টি। এদের মধ্যে একদিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৯ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। যার মধ্যে ২৮ জনই খুলনার জেলার। বাকি একজন বাগেরহাট জেলার।

তিনি আরও জানান, খুলনায় আক্রান্তদের মধ্যে ২৬ জনই মহানগরীর বাসিন্দা, দুইজন রূপসা উপজেলার উপজেলার। মহানগরীতে আক্রান্তদের মধ্যে বিভিন্ন এলাকার নানা পেশার মানুষ রয়েছেন। বিশেষ করে চারজন চিকিৎসক, একজন পুলিশ সদস্য, একজন কারারক্ষী, স্বামী-স্ত্রী, শিক্ষার্থী, সরকারি-বেসরকারি চাকরীজীবীও আক্রান্ত হয়েছেন।

ডা. মেহেদী নেওয়াজ জানান, খুলনায় নতুন শনাক্ত হওয়া ২৮ জনের মধ্যে রয়েছেন- খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক দম্পতি, যাদের বয়স ৪২ ও ৩৮ বছর, খানজাহান আলী রোডের ২৫ বছরের একজন তরুণী চিকিৎসক, সোনাডাঙ্গা এলাকার একজন চিকিৎসক (৪৮), খুলনা জেলা কারাগারের একজন (২৬), সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকার ২য় ফেজের ৩৪ বছরের এক ব্যক্তি, যিনি এনজিওতে কর্মরত, নগরীর দিলখোলা রোডের ৪৫ বছরের এক ব্যক্তি, জেলা প্রশাসনের একজন চাকুরীজীবী (৫০), রূপসার মরিয়মপাড়া এলাকার ৫৬ বছরের এক ব্যক্তি, নগরীর জোড়াগেট পুলিশ কোয়ার্টারের একজন (৫০), যিনি পুলিশে কর্মরত, নগরীর নূরনগর বয়রা এলাকার স্বামী (৩৮) ও স্ত্রী (৩৪), সোনাডাঙ্গা আবাসিকের ৩৫ বছরের এক ব্যক্তি, জিরোপয়েন্ট এলাকার ৫২ বছরের এক ব্যক্তি, কেডিএ এ্যাপ্রোচ রোডের ২০ বছরের তরুণী, গোবরচাকা মেইন রোডের ৪১ বছরের এক ব্যক্তি, খালিশপুর ১১নং রোডের ৫২ বছরের এক ব্যক্তি, রূপসার রাজাপুরের ৩০ বছরের এক যুবক, খালিশপুর পিপলস কলোনীর ২৫ বছরের এক নারী, হরিণটানা থানাধীন মোহাম্মদ নগরের ৫৫ বছরের এক ব্যক্তি, খালিশপুর হাউজিং স্টেটের ৫২ বছরের এক ব্যক্তি, বয়রা ভাঙ্গাপোলের ৫০ বছরের এক ব্যক্তি, দক্ষিণ টুটপাড়ার ৫৫ বছরের এক ব্যক্তি, ১৯ চারাবাটি বয়রা মেইন রোডের ২৫ বছরের যুবক, রূপসার যুগিহাটী এলাকার ২৮ বছরের এক যুবক, খালিশপুর ১১নং রোডের ৫৭ বছরের এক ব্যক্তি, আহসান আহমেদ রোডের ১৬ বছরের এক ছাত্রী। এছাড়া খুমেকের ল্যাবে বাগেরহাটের কচুয়া উপজেলার সোনারকোলা এলাকার ৫৫ বছরের এক ব্যক্তিরও করোনা শনাক্ত হয়েছে।

খুলনার সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ জানিয়েছেন, খুলনায় এখন পর্যন্ত মোট ১৮৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। যার মধ্যে ৪ জন মারা গেছেন। আর এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৩৬ জন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here