কোয়ারেন্টাইনে কনিকার আচরণে বিরক্ত চিকিৎসকরা

0
36

বিনোদন ডেস্ক
লন্ডন থেকে মুম্বাই বিমানবন্দরে পৌঁছে থার্মাল স্ক্রিনিং এড়াতে নাকি বাথরুমে লুকিয়েছিলেন বলিউডের ‘বেবি ডল’ খ্যাত গায়িকা কনিকা কাপুর। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি। এবার হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইনে নাকি একেবারে তারকাসুলভ আচরণ করছেন কনিকা। তার আচরণে রীতিমতো বিরক্ত হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তারা হুঁশিয়ারি দিয়েছে বলিউড গায়িকাকে।

মরণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েও প্রথম থেকেই নিয়ম ভেঙে চলেছেন কনিকা। লন্ডন থেকে ফিরে বাইরে ঘুরে বেড়িয়েছেন তিনি। এমনকী লখনউতে তাবড় রাজনৈতিক নেতা-মন্ত্রীদের সঙ্গে একাধিক পার্টিও করেছেন। তার পরেই তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। লখনউ পুলিশ তার বিরুদ্ধে মামলাও করেছে।

কোভিড-১৯ আক্রান্ত কনিকাকে সঞ্জয় গান্ধী হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। তার ঘরে একেবারে আলাদা করে এসি, টিভির ব্যবস্থা রয়েছে। গ্লুটেন-ফ্রি খাবারও দেয়া হচ্ছে তাকে। তার পরও গায়িকার নানা বায়না মেটাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে। চিকিৎসকদের বক্তব্য, কনিকার নিজেকে সবার আগে একজন রোগী হিসেবে ভাবা উচিত। এখন তিনি কোনো তারকা নন।

লন্ডন থেকে ফিরেই চরম দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো লখনউতে পার্টি করেছেন কনিকা। সেই পার্টিতে ছিলেন একাধিক মন্ত্রী-সাংসদ-আমলা। এছাড়া আরও প্রায় ৩৫০ জন সাধারণ অথিতি সেখানে হাজির ছিলেন। সেই পার্টির অনেকেই বর্তমানে নিজেদের ইচ্ছায় কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here